1. admin@somoy71.com : admin :
রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯:৩৪ পূর্বাহ্ন

পানিতে ভাসছে মুম্বাই

রিপোর্টারের নাম
  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ৬ আগস্ট, ২০২০
  • ৮৫ বার পড়া হয়েছে

অনলাইন ডেস্কঃ
করোনা পরিস্থিতির মধ্যে প্রকৃতির রোষে সম্পূর্ণ বিপর্যস্ত ভারতের মুম্বাই। গত কয়েকদিন থেকে একটানা বৃষ্টি হচ্ছে। তার সঙ্গী হয় ঝোড়ো হওয়া। সন্ধ্যায় এক সময় ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১০৭ কিলোমিটার বেগে দমকা হাওয়া বয়ে যায় শহরের উপর দিয়ে। আর এই দুইয়ের তাণ্ডবে বাণিজ্যনগরীর অবস্থা আরও বেহাল।

ভারতীয় গণামধ্যম এই সময় এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, মহারাষ্ট্রের পানিতে কর্নাটকের একটা বড় অংশও বানভাসি। আরও বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস। মুম্বাইয়ের পেড্ডার এলাকায় বুধবার রাতেই বিরাট ধস নামে। তার ফলে সকাল থেকেই সেখানে রাস্তা বন্ধ। বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে যান চলাচল। সব গাড়ি অন্যদিকে ঘুরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। ভোগান্তি বেড়েছে মানুষজনের। চলছে রাস্তা পুনর্নির্মাণের কাজ।

মুম্বাই-নাসিক হাইওয়েতেও যানচলাচল প্রবলভাবে বিপর্যস্ত। কল্যাণ ভিওয়ান্ডি বাইপাস, মুম্বরা বাইপাস থেকে থানে পর্যন্ত যান চলাচলের গতি অত্যন্ত শ্লথ। প্রবল বৃষ্টি ও ঝোড়ো হাওয়ায় গাছ পড়ে মুম্বাইয়ের বিভিন্ন এলাকায় রাস্তা বন্ধ হয়ে গেছে। সিওনের গান্ধী মার্কেট এলাকা, মুম্বাই সেন্ট্রাল, গোল দেভাল, সন্ত রোহিদাস চক-সহ বিস্তীর্ণ এলাকায় ট্র্যাফিক ঘুরিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

কোলাবায় গত ৪৬ বছরে সর্বাধিক বৃষ্টি হয়েছে। বুধবার সকাল সাড়ে ৮টা পর্যন্ত সেখানে বৃষ্টির পরিমাণ ৩৩১.৮ মিলিমিটার। এর আগে ১৯৭৪ সালের অগস্ট মাসে এই পরিমাণ বৃষ্টি হয়েছিল কোলাবায়। সঙ্গে ছিল ঘণ্টায় ১০৭ কিলোমিটার বেগে বয়ে যাওয়া ঝোড়ো হাওয়া। স্বাভাবিকভাবেই বানভাসি গোটা এলাকা। সান্তাক্রুজ এলাকায় ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টি হয়েছে ১৪৬.১১ মিলিমিটার।

ঝোড়ো হাওয়া এবং বৃষ্টির জোড়া দাপটে লণ্ডভণ্ড অবস্থা মুম্বইয়ের। শহরের সরকারি জেজে হাসপাতালের ভিতরে জল জমে গিয়েছে। একাধিক এলাকায় পানি জমে এবং গাছ পড়ে রাস্তা বন্ধ হয়ে যায়। ফলে দারুণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে যান চলাচল। ঝড়জলের দাপটে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে মুম্বাইয়ের লাইফলাইন লোকাল ট্রেন পরিষেবাও।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

প্রযুক্তি সহায়তায় ইন্টেল ওয়েব